শীর্ষ সংবাদ

পিরোজপুরে নারী মাদক ব্যবসায়ীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড

পিরোজপুরে ফেনসিডিল বিক্রির দায়ে নার্গিস
বেগম (৩৭) নামে এক নারীকে যাবজ্জীবন
কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে ২০
হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও পাঁচ বছরের
কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।
এছাড়া ইয়াবা বিক্রির দায়ে নার্গিসকে তিন বছরের
কারাদণ্ডাদেশ ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে
আরও এক বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন
আদালত।
বুধবার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে পিরোজপুর জেলা ও
দায়রা জজ মো. রফিকুল ইসলাম এ রায় দেন। মামলার
আরেক আসামি বাহাদুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ
প্রমাণ না হওয়ায় তাকে খালাস দেওয়া হয়।
নার্গিস সদর উপজেলার দক্ষিণ রানীপুর গ্রামের
মৃত আব্দুল ওহাব মৃধার মেয়ে। রায় ঘোষণার সময়
তিনি উপস্থিত ছিলেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৪
নভেম্বর সকালে পিরোজপুর জেলা পুলিশের
গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি দল সদর উপজেলার
বাদুরা গ্রামে অভিযান চালিয়ে মল্লিক বাড়ি সেতু
এলাকায় মাদক বিক্রির সময় নার্গিসকে গ্রেফতার
করে। এসময় নার্গিসের সঙ্গে থাকা ব্যাগে ৪০
বোতল ফেনসিডিল ও ৫৫টি ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া
যায়। পরে নার্গিস পুলিশকে জানান যে সদর
উপজেলার হারণা গ্রামের বাহাদুর তার সঙ্গে জড়িত।
ওই দিন পিরোজপুর জেলা পুলিশের গোয়েন্দা
শাখার সেই সময়ের এসাঅই হাচনাইন পারভেজ বাদী
হয়ে ওই দু’জনকে আসামি করে মামলা করেন। ওই
বছরের ৯ ডিসেম্বর পুলিশ আদালতে
অভিযোগপত্র জমা দেয়। মামলার নয় সাক্ষীর
সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বুধবার এ রায় দেন আদালত।
সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি খান
মো. আলাউদ্দিন। আসামি পক্ষে ছিলেন আহসানুল
কবির বাদল।

Facebook Comments