খেলাধুলা, বাংলাদেশ

মধ্যরাত থেকে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়েও বিপিএল’র টিকিট মিলছে না

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) টিকিটের জন্য ৩০ অক্টোবর সোমবার দিবাগত মধ্যরাত থেকেই স্টেডিয়ামের সামনে ভিড় করছেন সিলেটের ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকরা। কিন্তু হাজার টাকার ওপরে ছাড়া অন্য টিকিট পাচ্ছেন না টিকিটপ্রত্যাশীরা। বিক্রি শুরুর মাত্র ২ ঘণ্টার মাথায় প্রথম দিনের ২শ’, ৩শ’ ও ৫শ’ টাকা মূল্যের টিকিট শেষ হয়ে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তারা।

৩১ অক্টোবর মঙ্গলবার থেকে রিকাবীবাজারস্থ সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের প্রধান ফটকের সামনে টিকিট বিক্রি শুরু হবে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে ক্রিকেট পাগল দর্শকেরা শীত উপেক্ষা করে টিকিটের জন্য স্টেডিয়ামের সামনে ভিড় করছেন।

মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের প্রধান ফটকে গিয়ে দেখা যায়, স্টেডিয়ামের ফটকে চারটি বুথের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। রোদ উপেক্ষা করেও টিকিটের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন শত শত টিকিটপ্রত্যাশীরা। এদের মধ্যে অনেকেই সোমবার মধ্যরাত থেকে আবার অনেকেই মঙ্গলবার ভোর থেকে এসে লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

টিকিটপ্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইনের একটি জেলা স্টেডিয়ামের ক্রীড়া ভবনে টিকেট কাউন্টার থেকে একদিকে মদন মোহন কলেজ, আরেক দিকে স্টেডিয়াম মার্কেট ছাড়িয়েছে।

টিকেটপ্রত্যাশীরা জানান, বিক্রি শুরুর মাত্র ২ ঘণ্টা পর থেকে ২শ’, ৩শ’ ও ৫শ’ টাকা মূল্যের টিকিট দেওয়া বন্ধ করে রেখেছেন বিক্রেতারা। এখন শুধু প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের ২ হাজার টাকার গ্রান্ডস্ট্যান্ড ও ৫শ’ টাকার টিকিট বিক্রি করছেন বিক্রেতারা। ফলে অনেকেই টিকিট কিনতে না পেরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন লাইনে থাকা টিকিটপ্রত্যাশীরা।

বিক্রেতারা বলছেন, বিক্রি শুরুর দু’ঘণ্টার মধ্যেই ২শ’, ৩শ’ ও ৫শ’ টাকা মূল্যের টিকিট শেষ হয়ে গেছে, এখন শুধু ২ হাজার টাকার গ্রান্ডস্ট্যান্ডের টিকেট বাকি আছে। টিকেটের জন্য লাইনে দাঁড়ানো অনেকেই জানিয়েছেন, পরিবার নিয়ে খেলা দেখার জন্য একাধিক টিকিট চাইলেও কাউন্টার থেকে দেওয়া হচ্ছে না।

সোমবার মধ্যরাতে এসে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে টিকিট হাতে পাওয়া বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মিল্টন মল্লিক প্রিয়.কমকে জানান, রাত সাড়ে ১২টা থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে বেলা সাড়ে ১২টায় টিকেট হাতে পেয়েছি। অত্যন্ত দুঃখজনক হলো কাউন্টার থেকে একাধিক টিকিট না দেওয়ায় পরিবারের কাউকে নিয়ে খেলা দেখতে পারব না। একা একা দেখতে হবে।

মঙ্গলবার ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কিনতে না পেরে হতাশ হয়েছেন মদন মোহন কলেজ শিক্ষার্থী হাফিজ মোহাম্মদ লিটন। তিনি প্রিয়.কমকে বলেন, ৫ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়ানোর পর বলছে শুধু ২ হাজার টাকার টিকিট আছে। টাকা কী গাছে ধরে, যে কেউ চাইলে ২ হাজার টাকা দিয়ে খেলা দেখতে পারবে?

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ৩১ অক্টোবর মঙ্গলবার থেকে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকে (ইউসিবি) বিপিএল’র টিকিট দেওয়ার কথা থাকলেও সেটি হচ্ছে না। তাই ইউসিবি ব্যাংকের পরিবর্তে মঙ্গলবার সকাল থেকে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের প্রধান ফটকে চারটি বুথের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি হবে জানানো হয়। এমন খবর জানা মাত্র স্টেডিয়ামের সামনে লাইনে দাঁড়াতে শুরু করেন সিলেটের ক্রিকেট পাগল দর্শকরা। তাদের ধারণা ছিল, সকালে স্টেডিয়ামে আসলে যদি টিকিট না পাওযায়, সে কারণেই মধ্যরাতে শীত উপেক্ষা করে লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

তবে বিক্রি শুরুর দু’ঘণ্টার মধ্যেই ২শ’, ৩শ’ ও ৫শ’ টাকা মূল্যের টিকিট শেষ হলেও সময় বাড়ার সাথে সাথে সিলেট স্টেডিয়ামে টিকিটপ্রত্যাশীদের উপস্থিতি বাড়ছে।

বিপিএল’র পঞ্চম আসরের পর্দা উঠছে সিলেটে। ৪ নভেম্বর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ান ঢাকা ডায়নামাইট ও সিলেট সিক্সার্স।

৫ ক্যাটাগরিতে টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। গ্র্যান্ডস্ট্যান্ডে টিকিটের মূল্য দুই হাজার, ক্লাব হাউস ৫০০, গ্রিন গ্যালারি ৪০০, ওয়েস্টার্ন গ্যালারি ৩০০ ও নর্দান গ্যালারি ২০০ টাকা নির্ধারণ করেছে বিসিবি। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা প্রায় ১৮ হাজার।

Facebook Comments